আইফোন ১১ ওয়্যারলেস চার্জিং নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা! - TrickBD.Info

আইফোন ১১ ওয়্যারলেস চার্জিং নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা!

আইফোন! নামটা শুনলেই যেন চমকে যাই তাই না ? অনেক দামি ফোন! আজকাল হাতে আইফোন থাকলে আর কি লাগে তাই না ? বর্তমান সময়ে যদি হাতে ১টি আইফোন থাকে তাহলে ভাব জমাতে অন্য কিছুই আর লাগে না । তো যাইহোক আজকে আমার টপিকটি হলো আইফোন নিয়ে । আপনারা জানেন যে টেকনোলজি এর সকল খবর আমি আপনাদের মাঝে সবার আগে এনে থাকি। তাই আজকেও আমি আপনাদের মাঝে আইফোনের একটি গরম খবর নিয়ে হাজির হয়েছি।

বর্তমানে আইফোনের ১১ সিরিজের কয়েকটি ফোন বাজারে এনে অ্যাপল ভাইরাল। আর এই ফোন কেনার জন্যই আমরা অনেকে পথ চেয়ে বসে আছি কবে আইফোনের এই সিরিজগুলি বের হবে। আবার আজকের আমার এই সিরিজের গরম খবর শুনে আইফোনের ১১ সিরিজের ফোন কেনার সাধ মিটে যেতেও পারে।

নতুন আইফোন ১১, আইফোন ১১ প্রো, এবং আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স এই ১১ সিরিজের ৩ টি ফোন ক্যামেরা এবং ডিজাইন বাদে আর অন্য সবগুলি সেইরকম ভাল হবে বলে ভাবছে সবাই। এবং ক্যামেরা এবং ডিজাইন কোয়ালিটি যদিও মেনে নেওয়া যায়। তবে আর সবগুলি নিয়ে আইফোনের সকল ১১ সিরিজ অনেক সমালোচিত এর মুখে।
আসলে সত্যিকার অর্থে, কয়েকটি জিনিস রয়েছে যা কখনো সেই সমস্থ জিনিসগুলি তেমন উত্তেজনাপূর্ণ নয়।

আইফোনের ওয়্যারলেস চার্জিং

সনি ডিকসন, হয়তো আমরা অনেকে একে চিনতে পারি। এই লোকটি যিনি প্রায়শই অ্যাপলের তথ্য ফাঁস করেন। তিনি টুইটারে টুইট করেছিলেন, “নির্ভরযোগ্য সূত্রগুলি বলছে যে আইফোন ১১ এবং ১১ প্রোতে দ্বিপক্ষীয় চার্জিংয়ের জন্য হার্ডওয়্যার অন্তর্ভুক্ত রয়েছে, তবে এটি সফ্টওয়্যার অক্ষম। চূড়ান্ত উত্পাদন পরিচালনার আগে এটি সরানো হয়েছিল কিনা তা অনিশ্চিত । এখন আপনি ভাবেন অ্যাপল  কি কাজটা করে দিল।

দ্বিপাক্ষিক বেতার চার্জিং আইফোন ব্যবহারকারীকে অন্যান্য কিউ-সামঞ্জস্যপূর্ণ ডিভাইসগুলি ওয়্যারলেসভাবে চার্জ করতে দেয়। বৈশিষ্ট্যটি কিছু অ্যান্ড্রয়েড ফোনে অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে, তবে মনে হচ্ছে আইফোনে এর আরও ব্যবহার হবে। বিদ্যুৎ বন্দর বিপরীত চার্জিং সমর্থন করে না। তবুও আইফোন ব্যবহারকারীদের প্রায়শই অন্যান্য অ্যাপল পণ্য থাকে যেমন একটি অ্যাপল ওয়াচ বা এয়ারপডস এবং দ্বিপক্ষীয় বেতার চার্জগুলি সেগুলি চার্জ করার জন্য আরও একটি পদ্ধতি সরবরাহ করে। তাহলে আশাকরি আপনি বুজতেই পারলেন আমার কথাগুলি।

আইফোন ১১ ওয়্যারলেস চার্জিং

গত সপ্তাহে নতুন আইফোন প্রকাশের আগে, ব্লুমবার্গের মার্ক গুরমান এবং বিশ্লেষক মিং-চি কুও-র মতো মুক্তির প্রাক অ্যাপল পণ্যগুলির সাথে সাধারণত উত্সাহিত হওয়া অনেক সূত্র জানিয়েছিল।
যে দ্বিপাক্ষিক বেতার চার্জ হতে চলেছে আইফোন বৈশিষ্ট্য। তবে গত মঙ্গলবার অ্যাপল ইভেন্টের ঠিক আগে তারা হঠাৎ তাদের সিধান্ত বদলে ফেলেছে।

আশাকরি অ্যাপলের কাহিনি বুঝতে পেরেছেন। যারা আপনারা শখের বসে অ্যাপলের আইফোন ১১ সিরিজের মোবাইল কিনতে চাচ্ছেন। তারা আশাকরি আমার এই আর্টিকেল পরে ভালভাবে জেনে বুঝে নিবেন। যাতে যে আশা বা যে ফিচার আশাকরে কিনবেন সেগুলি যেনো আপনারা পান।

আমার আর্টিকেলটি যদি ভাললাগে তাহলে অবশ্যই আমার এই আর্টিকেল ফেইসবুকে বা অন্য কোনো সোশ্যাল মিডিয়াতে শেয়ার করবেন। যাতে আমার এই আর্টিকেল থেকে আরো অনেকে জানতে পারে। বা উপকৃত হতে পারে। সবাইকে ধন্যবাদ আমার আর্টিকেল সময় নিয়ে পরার জন্য।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *